নিউইয়র্ক টাইমসের পাতায় নাসার চমকে দেওয়া খবর

   

মঙ্গল গ্রহ নিয়ে আমাদের গবেষণা আরও এক নতুন পথ পেল। নাসার অক্লান্ত পরিশ্রমে ‘ইনসাইট’ পাঠানো হয়েছিল অনেক আগেই। গত ৫ মে ক্যালিফোর্নিয়ার পশ্চিম উপকূল থেকে ইনসাইটকে উৎক্ষেপণ করা হয়। এরপর  এটাকে  পাড়ি দিতে  হয়েছে ৩০ কোটি মাইল বা ৪৫ কোটি ৮০ লাখ কিলোমিটার পথ। নভেম্বর মাসে ভারতীয় সময় রাত ১টা ২৩ মিনিটে যানটি সফলভাবে মঙ্গলের মাটিতে অবতরণ করে। অবতরণের ছয় মিনিটের মাথায় যানটি থেকে মঙ্গলের ছবি পাঠানো শুরু হয়।

এবং সেখানেই শোনা যায় মঙ্গলে বাতাস বয়ে যাওয়ার শব্দ। সেই শব্দ যাচাই করে দেখার জন্য পাঠানো হয় নাসার ল্যাবেরেটরিতে। জানা যায় ওই মুহূর্তে মঙ্গলে বাতাস বয়ে যাওয়ার গতিবেগ ছিল ঘন্টায় ১০ থেকে ১৫ মাইল। এই গতিবেগ পৃথিবীর থেকে অনেকটাই পিছিয়ে। নাসা জানিয়েছে ইনসাইটের দুটি যন্ত্রেই এই সব্দ ধরা পরেছে।

আপাতত আরও তথ্য সংগ্রহে ব্রতী আছে ইনসাইট। তার কাজ শেষ হওয়ার পরই মঙ্গলে মানুষবাহী যান পাঠাবার ব্যবস্থা করবে নাসা। এমনই জানানো হয়েছে নিউইয়র্ক টাইমসের খবরে।

Facebook Comments