হুঁকোর টান ডেকে আনছে আপনার হাজারো সমস্যা

এই প্রজন্মের অনেককেই বলতে শোনা যায়, ডিপ্রেশন কমাতে তারা নেশার দ্বারস্থ হয়েছেন। শুধু মদ, গাঁজা, সিগারেট বা হুঁকো নয়, এমনকী এলএসডি-র মতো খতরনাক ড্রাগসও তারা নাকি স্রেফ ডিপ্রেশন কমানোর জন্য ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু তারা কি একবারও এর পরিণাম কী হতে পারে তা নিয়ে কখনও ভেবে দেখেছেন ?

জানা যাচ্ছে হুঁকোর টানে বেড়ে যাচ্ছে নার্ভের প্রবলেম থেকে শুরু করে ডায়েবেটিস কিংবা ওবেসিটির মতো ভয়ানক সমস্যা। একটি সমীক্ষায় জানা গেছে হুঁকোর ভিতর ব্যবহৃত সীসা প্রায় ৩০ টি সিগারেটের সমান ক্ষতি করতে সক্ষম। অর্থাৎ হুঁকোর প্রতি টানে আপনি প্রায় তিরিশটি সিগারেটের টার নিজের ফুসফুসে জমিয়ে রাখছেন।

এখন প্রায় প্রতিটা বারেই নানান ফ্লেভারের হুককা পাওয়া যায়। এবং তার চাহিদাও প্রচুর। এগুলি থেকে নানা রকমের সমস্যা চলে আসছে মানুষের শরীরে। যেমন – অনিদ্রা, ওজন বেড়ে যাওয়া, ডায়াবেটিস, মেটাবোলিজম বেড়ে যাওয়া এরকমই নানা রকমের অসুখ। ইরানের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ১০০০০ মানুষের উপর পরীক্ষা করে দেখা গেছে হুঁকোর এক টানে ক্ষতি হচ্ছে তিরিশটি সিগারেটের সমান। তাই আপনার যদি এরকম কোনো অভ্যাস থাকে অবিলম্বে তা ত্যাগ করুন। পরিবর্তে মন ফুরফুরে রাখার জন্য বই পরুন। তাতে আপনার জ্ঞানের ভান্ডারও বৃদ্ধি পাবে। আর আপনার মনও নিঃসন্দেহে ভালো হয়ে উঠবে।

Facebook Comments