সম্রাট দে-র কবিতা

অর্থ

হিসাবের কারিকুরি।
খতিয়ান খাতা বা হোক জাবেদা,
সুসাজের পাতা ভরা মুসাবিদা।
আব্বুলিশ, থুড়ি !

হিসাবের কারিগরি।
জাবেদা থেকে খতিয়ান খাতা
ভরা থাকে জরাজীর্ণ পাতা…
শুধু ভুল ধরাধরি!

সমাজ

রাষ্ট্রের সাথে ‘সাপলুডো’ খেলি,
সমাজে সাজাই ‘দাবা’।
আনকোরা লাথি ‘ভলিবল’এ চালি!
অকারণ শাসকে থাবা ।

হাড়গিলে সুখ নীতিকথা শোনে,
কাগজে মেজাজ স্যাঁকা।
আকছার খুঁজি, আলবাৎ পাই
সাজানো সুখের দ্যাখা…

দর্শন



তত্ত্বকথার কচকচানি, উপেক্ষার আনাগোনা।
চোখে ঘষা-কাচ আর, বন্ধ কানে শোনা।
অশিক্ষিত পান্ডিত্যের ফ্রয়েডীয় উচ্চারণ
চেপে ধরে শ্বাস, মৃত্যুর আবরণ!

আদর্শের নগ্নতা ছুঁয়ে
মুখোশের দ্বিস্তর স্খলিত যাপন।
আলোকিত রাতে ধুই
শরীরের ব্যবচ্ছেদে সাজানো ‘আপণ’…

Facebook Comments