রাতে ভালো ঘুম চান? তাহলে আজই দূরে সরান এই জিনিসগুলো

ঘুম প্রত্যেকটা মানুষের জীবনেই খুব জরুরী। ঘুম ঠিকঠাক না হলে শরীরের একের পর এক সিস্টেম বিকল হতে শুরু করে। তবে ঘুমের জন্য আরামদায়ক বিছানা ও বেডরুম যেমন জরুরী, তেমনি বিছানা থেকে কিছু জিনিস দূরে রাখাও জরুরী। নয়তো আপাতদৃষ্টিতে নিরীহ দেখতে এইসব জিনিসই আপনার ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। আসুন জেনে নিই পারফেক্ট ঘুমের জন্য কোন জিনিসগুলোকে বিছানা থেকে দূরে রাখবেন।

প্রাণপ্রিয় মোবাইল ফোন

বিছানায় ফোন নিয়ে আসার অনেক কারণ একবারে শুনিয়ে দিতে পারেন অনেকেই। যেমন- একে অ্যালার্ম ক্লক হিসেবে ব্যবহার করা যায়, জরুরী ফোন কলের জন্য বিছানা থেকে উঠতে হয় না, ঘুমাতে যাবার আগে এবং ঘুম থেকে উঠেই চেক করা যায় সোশ্যাল মিডিয়ার নোটিফিকেশন। কিন্তু এর ক্ষতির পরিমাণও কম নয়, বরং বেশি। মাথার কাছে ফোনের রিং অথবা ভাইব্রেশনে আপনার ঘুম ভেঙ্গে যাবে তো বটেই, এরপর ঘুম আসতেও চাইবে না সহজে। স্মার্টফোন, ট্যাব, ল্যাপটপ এবং অন্যান্য ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস থেকে আসা নীলচে আলোর প্রভাবে আপনার ঘুম কমতে থাকবে এটাই স্বাভাবিক। সকালে ওঠার জন্য যদি অ্যালার্ম দরকার হয় তাহলে অ্যালার্ম ক্লক ব্যবহার করুন নাহলে অন্য ঘরে রেখে ফোনের ভলিউম বাড়িয়ে দিন।

অফিসের হাজারো দরকারী কাজ

অফিসের কাজ অবশ্যই দরকারী। তাকে চেষ্টা করুন অফিসেই মিটিয়ে ফেলতে। আর যদি বাড়িতে বয়ে আনেন বা ওয়ার্ক ফ্রম হোম মোডে কাজ করেন তবে আপনি সম্ভবত ল্যাপটপ বা ওইরকম কোনও ডিভাইসের সাহায্যের সাহায্যেই কাজ করছেন। একটু আলসেমি লাগলে বিছনায় উঠে গেলেন ল্যাপটপ নিয়ে। তবে ঘুমনোর আগে ল্যাপটপ অবশ্যই সরান। ঘুমের ওপরে যার নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে। শুধুমাত্র ঘুমের জন্যই বরাদ্দ রাখুন আপনার বিছানাটিকে।

আদুরে পোষ্য প্রাণী

পোষা বেড়াল অথবা কুকুর কোলে নিয়ে ঘুমাতে যতই ভালো লাগুক আপনার, এতে আপনার লাভ নেই মোটেই। বরং যতবার সে ম্যাও করে উঠবে, ততবারই ঘুমের বারোটা বাজবে আপনার। এছাড়াও তারা বিছানায় নিয়ে আসে ধুলোবালি এবং পুরনো লোম যা থেকে দেখা দিতে পারে অ্যালার্জি। তাই ঘুমনোর আগে তাদের অন্য কোথাও রেখে আসুন।



একটু খাবার যদি খিদে পায় 

প্রথমত বিছানায় খাওয়া মোটেই স্বাস্থ্যকর কোনো অভ্যাস নয়। বিছানা থেকে খাবার পরিষ্কার করাটা যেমন ঝামেলা, তেমনি কাজটি ভালোভাবে না করলে পোকামাকড় এবং জীবাণুর আখড়া হয়ে যাবে আপনার বিছানা। এতে তো ঘুম ভালো হবেই না, বরং অসুস্থ হয়ে পড়ার সম্ভাবনা প্রবল। আর হ্যাঁ এমন হতে পারে আপনি খেতে খুব ভালোবাসেন, ভাবলেন রাতে যদি খিদে পায়! একটু খাবার রাখা যেতেই পারে হাতের কাছে যদি রাতে খিদে পায়! ভালো ঘুমের জন্য নির্দ্বিধায় এই অভ্যাস ত্যাগ করুন।

Facebook Comments