অতিরিক্ত ঘুম মৃত্যুর কারণ হতে পারে!

কারোর ঘুম আসতে চায় না আবার কেউ কেউ বেশি ঘুমোন। কেউ কেউ মনে করেন বেশি ঘুমোলে শরীর ভালো থাকে। হ্যাঁ একথা পুরোপুরি না হলেও খানিকটা ঠিক। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ৬ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমকেই যথাযথ বিবেচনা করা হয়। তবে যারা আট ঘন্টার বেশি ঘুমোন তাদের জন্য আগামীতে বিপদ অপেক্ষা করছে এমনটাই জানা গেছে একটি সমীক্ষায়। ইউরোপিয়ান হার্ট জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে রাতে আট ঘণ্টার বেশি কিংবা ছয় ঘণ্টার কম ঘুমানোর সঙ্গে কার্ডিওভাসকুলার রোগে আক্রান্ত হওয়ার এবং মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ার গভীর সম্পর্ক রয়েছে।

সারা বিশ্বের একুশটি দেশের তথ্যের ওপর ভিত্তি করে গবেষণাটি সম্পন্ন হয়েছে। ৩৫ থেকে ৭০ বছর বয়সী ১ লাখ ১৬ হাজার ৬৩২ জন প্রাপ্তবয়স্ককে নমুনা হিসেবে নেওয়া হয়েছিল এই গবেষণায়। গবেষকরা বলছেন, রাতে সর্বোচ্চ ছয় থেকে আট ঘণ্টা ঘুমানোর পরামর্শ মানছে না মানুষ। আট ঘণ্টার বেশি ঘুমানোর কারণে হৃদযন্ত্র ও রক্তপ্রবাহের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট রোগের বৃদ্ধি ৪১ শতাংশ। এতে মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ছে। যারা ১০ ঘণ্টার বেশি ঘুমায় তাদের মধ্যে কার্ডিওভাসকুলার রোগে আক্রান্ত হওয়া কিংবা মারা যাওয়ার হার হাজারে ১৪.৮ শতাংশ। এই পরিসংখ্যান সারা বিশ্বকে চমকে দিয়েছে।

এর সাথে এই গবেষণায় এই তথ্যও উঠে এসেছে, যাদের দিনের বেলা ঘুমানোর অভ্যাস রয়েছে, তাদের মধ্যেও কার্ডিওভাসকুলার রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ছে। আবার কেউ যদি রাতে ছয় ঘণ্টার কম ঘুমান তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকিটা কম। দিনের ঘুমে তাদের রাতের ঘাটতি পূরণ হবে বলে জানিয়েছে এই গবেষণা।

Facebook Comments