ঘরের পর্দা কেনার আগে এই জিনিসগুলো মাথায় রাখুন

ঘরের খুঁত ঢাকতে পর্দা নয়। পর্দা ব্যবহার করুন ঘরের সৌন্দর্য বাড়াতে। তাই পর্দা কেনায় কোনো গাফিলতি তো নয়ই, উলটে পর্দা কেনার সময় নিজের শিল্পী সত্ত্বাকে জিইয়ে রাখুন। ঘর ছোট-বড় যেমনই হোক চাই সুন্দর পর্দা। ঘরের সৌন্দর্য ফুটিয়ে তোলে বা বাড়িয়ে দেয় ঘরের পর্দা। ঘরের পর্দাও আসবাবের মতো অনেক কথা বলে। এই পর্দা কেবল প্রয়োজনের নয়, ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতেও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে পর্দার সাজ। সুন্দর করে ঘর সাজতে চাই সঠিক পর্দা। এক্ষেত্রে পর্দার রঙ, ডিজাইন, অ্যাকসেসরি, ম্যাটেরিয়াল বা কাপড় সবই গুরুত্বপূর্ন।

ঘরে শান্ত-শীতল ভাব আনতে হালকা রঙের পর্দা নির্বাচন করুন। একই সাথে এই হালকা পর্দা আপনার ঘরকে বড় দেখাতেও সাহায্য করবে। ঘরের দেয়াল ও পর্দার রঙের মাঝে একটা সম্পর্ক বজায় রাখুন। দেয়ালের রঙ গাঢ় হলে পর্দার রঙ হালকা রাখুন। দেয়ালের রঙ হালকা হলে করুন ঠিক উল্টোটা। আবার যদি দেওয়াল আর ঘরের ফার্নিচার একই রঙের হয় তবে পর্দা হোক কনট্রাস্ট। আপনার ঘর যদি খুব ছোট হয়ে থাকে, তাহলে খুব বেশী লম্বা পর্দা বানাবেন না। ছোট পর্দা ঘরকে বড় দেখাতে সাহায্য করে। পর্দা এমন বাছাই করবেন যেন আপনার পক্ষে ধুতে সহজ হয়। যে পর্দা সহজে ধুতে পারবেন না, সেটা কেনার দরকার নেই। নোংরা পর্দার চাইতে বাজে কিছু আর হতে পারে না। শোবার ঘরের জন্য হালকা রঙের একটু ভারী পর্দা বেছে নিন, তাতে আলো নিয়ন্ত্রণে সুবিধা হবে। অন্যদিকে ঝলমলে আর স্টাইলিশ পর্দা রাখুন বসার ঘরে। পুরো বাড়িতে একই রকম পর্দা ব্যবহারের ভুল  করবেন না। এটা এখন আর চলে না। রঙ আর ঘরের ধরণ মেনে একেক কামরায় একেক রকম পর্দা দিন। ছোট ঘরের জন্য বড় প্রিন্টের পর্দা কখনো ব্যবহার করবেন না। আর ডাবল লেয়ারের পর্দাও নয়। ঘরের দরজায় দেওয়ার জন্য হালকা ফুরফুরে পর্দা বেছে নিন। যেখানে আড়ালের খুব বেশি প্রয়োজন নেই সেখানে নেট, ক্রুশ ইত্যাদি পর্দা ব্যবহার করা যেতে পারে।

এই বিষয়গুলো মাথায় রেখে পর্দা কিনতে যান। এবার কিনতে গিয়ে যদি পছন্দমতো রেডিমেড পেয়ে যান অবশ্যই নিয়ে নিন। কিনতে যাওয়ার আগে দরজা জানলার হিসেব ও কোথায় আপনার কীরকম পর্দা চাই সেটা চার্ট করে নিন। ফলে ভুল হবার সম্ভাবনা কমবে। দোকানদারকে আপনার পছন্দ ও চাহিদা ভালো করে বুঝিয়ে দিন। তাহলে কাজটা সহজে হবে। রেডিমেড হলে সাধারণত স্যাম্পেল ঝোলানোই থাকে। না হলে কল্পনা করে নিন কেমন লাগবে।

সাধারণত স্থানীয় বাজারে পর্দা বিছানা একসাথেই পাওয়া যায়। তবে একটু বিশেষভাবে সাজানোর ইচ্ছে থাকলে চাঁদনি মার্কেট, নিউ মার্কেট ছাড়া কিছু দোকানে দেখতে পারেন। হোম টাউন, স্পেসিও, বা অন্যান্য মল যেতে পারেন। আপনার যদি কাজ করা পর্দার শখ থাকে আপনি পর্দার কাপড় কিনে কাজ করিয়ে নিতেও পারেন। এমব্রয়ডারি, ফেব্রিক এসব হাতের কাজে ঘরের সাজে অন্য মাত্রা চলে আসবে। পর্দার কাপড় কিন্তু নানারকমের হতে পারে। সুতি, খাদি, সাটিন, জুট, নেট, সিন্থেটিক আরও কত শত। তাই ভেবে চিন্তে, দেখে শুনে পর্দা কিনুন।

Facebook Comments