আগামী ২৫ শে জানুয়ারি Eros-এর ডিজিটাল অ্যাপে আসছে রেমা বোসের ছবি ‘ভাগশেষ’।

প্রতীপ হালদার

প্রতিবছরই কত না বাংলা ছবি রিলিজ করে, তবে দর্শকের মনে ছাপ রেখে যায় এমন সিনেমা হাতেগোনা। এমনই একটা ছবি হল ‘ভাগশেষ’। সাধারনত বাংলা সিনেমায় মহিলা পরিচালক তুলনামূলক অনেক কম। সে তালিকা যত নাতিদীর্ঘই হোক, সেখানে নিজের জায়গা বেশ পোক্ত করে নিয়েছেন ‘ভাগশেষ’-এর পরিচালক রেমা বোস। পেশায় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইকোলজির লেকচারার এই পরিচালকের ‘ভাগশেষ’ ছবিটি যে একেবারে অন্য ঘরানার তা ইতিমধ্যেই দর্শক থেকে ফিল্মক্রিটিক সবার কাছে স্পষ্ট। গত বছরের জুলাইতে মুক্তি পেয়েছিল ‘ভাগশেষ’। পরিচালক হিসাবে রেমা বোসের আত্মপ্রকাশ ‘ভাগশেষ’-এর মাধ্যমেই। আগামী ২৫ শে জানুয়ারি ErosNow ডিজিটাল অ্যাপে আসছে ‘ভাগশেষ’।

সিনেমাটি যারা দেখেছেন তাঁদের একটা বড় অংশই বলেছেন এই সিনেমার গল্পের পরিবেশনা, কাহিনি ও চিত্রনাট্য সত্যিই দর্শকে একটি লুকোনো আয়নার সামনে দাড় করায়। আদ্যোপান্ত সিনেমাটি যেমন এক অন্য মাতৃত্বের নির্মান, তেমনই ছবিটি এক অন্যরকম বন্ধুত্বের ছবিও বটে, আবার সেখানে আছে প্রেমও।

For more update follow Us on facebook :

ছবিটির কাহিনি, চিত্রনাট্য লিখেছেন পরিচালক নিজেই। ছবিতে সুরকার হিসেবে ছিলেন আচার্য্য জয়ন্ত বোস। সহযোগী পরিচালক হিসাবে ছিলেন অনামিক সাহা। এই ছবিতে গান গেয়েছেন শুভমিতা ব্যানার্জি ও জয়তী চক্রবর্তী। অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, মালবিকা সেন, প্রিয়াঙ্কা সরকার, কৌশিক রায়, অম্বরীশ ভট্টাচার্য, শুভজিৎ দত্ত সহ অনেকেই। সকল অভিনেতা অভিনেত্রীদের অভিনয় ও মনোগ্রাহী পরিচালনা ইতিমধ্যেই বহু দর্শককে মুগ্ধ করেছে। এই ছবিটির প্রসঙ্গে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় একটি মিডিয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, “আমার ৬০ বছরের অভিনয় জীবনে এমন চরিত্র কোনোদিন করিনি। এখানে এক ব্যাতিক্রমী চরিত্রে অভিনয় করেছি।” যারা ছবিটি দেখেছেন তাঁরা তো দেখেছেনই, যারা দেখেননি তাঁদের জন্য আবারও সুযোগ করে দিয়েছে ErrosNow।

পরিচালক রেমা বোস বলেন, ‘ছবিটি সিনেমা হলে দেড় মাস চলেছিল। যারা সেই সময়ে মিস করেছিলেন তাঁরা Eros-এ সিনেমাটি দেখতে পাবেন। জাঁকজমক ছাড়াও যে, কোনো ছবিকে হৃদয়স্পর্শী করে তোলা যেতে পারে তাঁরই একটা চেষ্টা করা হয়েছে এই ছবিতে।”

ভিডিওতে দেখুন এই প্রসঙ্গে কী বললেন পরিচালক… 

Facebook Comments